শিরোনামঃ
স্বপ্নের পদ্মা সেতু শুভ উদ্ভোধন করেন বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে লিটন স্মৃতি সংসদ শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন পদ্মা সেতুর উদ্ধোধন উপলক্ষ্যে শরনখোলা ও মোংলা আনন্দ র‌্যালী পদ্মাসেতু উদ্বোধনে প্রেসক্লাবের আয়োজনে আনন্দ শোভাযাত্রা সাংবাদিক আহমেদ আলী খানের স্ত্রীর ইন্তেকালে বৃহত্তর আমরা খুলনাবাসীর শোক পদ্মাসেতুর উদ্বোধনে সাতদিন ব্যাপী আনন্দ মেলাসহ নানা আয়োজন প্রশাসনের আওয়ামী লীগ জনগণের রাজনৈতিক দলঃশেখ তন্ময় এমপি   পৌর শহরে দিনে ও রাতে পৃথক ২টি চুরি সংঘঠিত বৃহত্তর আমরা খুলনাবাসীর সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠান বাগেরহাটে সচেতনতা মুলক প্রশিক্ষন অনুষ্ঠান

২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা

উত্তাল সংবাদ ডেস্কঃ
  • প্রকাশিত শুক্রবার, ১৭ জুন, ২০২২
  • ২১

বাগেরহাট প্রতিনিধি :

স্বপ্নের পদ্মাসেতু উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে খুলনা বিভাগের ১০ লাখ মানুষ অংশ নেবে- এমপি শেখ হেলাল ।
দেশী-বিদেশী সকল ষড়যন্ত্র রুখে স্বপ্নের পদ্মা সেতু নির্মাণ করেছে আওয়ামী লীগ সরকার। আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা।

এ জন্য এখন দেশের দক্ষিণÑপশ্চিম অঞ্চলের ২১ জেলায় উৎসব মূখর পরিবেশ বিরাজ করছে। এই উদ্বোধনের স্বাক্ষী হতে বাগেরহাটসহ খুলনা বিভাগ থেকে ১০ লাখ মানুষ পদ্মাপাড়ে কাঠালবাড়ির সমাবেশে যোগ দেবে। এজন্য খুলনা বিভাগের সকল জেলা উপজেলা ও মহানগরে প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার জনসভায় দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকরা অংশ নেবেন। বাগেরহাটের সকল উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে সুশৃংখল ও স্বতস্ফুর্তভাবে অংশগ্রহণ করবেন বলেছেন  শেখ হেলাল উদ্দীন এমপি।
স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশাল জনসভা সফল করার লক্ষ্যে শুক্রবার বিকেলে বাগেরহাট সার্কিট হাউজে জেলা আওয়ামী লীগের মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্ত্যবে এমপি শেখ হেলাল উদ্দিন আরো বলেন, । যারা অনুষ্ঠানে যেতে পারবেন না তারা নিজ নিজ এলাকায় জেলা, উপজেলা প্রশাসণ ও দলীয় আয়োজনে প্লাকাড, ফেস্টুন নিয়ে মিছিল করবে। বড পর্দায় পদ্মা সেতুর উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানসহ প্রধানমন্ত্রীর পদ্মাপাড়ের মহাসমাবেশের বক্তব্য শুনবেন। এমপি হেলাল আরো বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারকে নিয়ে দেশী-বিদেশী ষড়যন্ত্র ও প্রতিকুলতা মোকাবিলা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বপ্নের পদ্মা সেতু বাস্তবায়ন করে প্রমান করেছেন, তিনি বঙ্গবন্ধুর মেয়ে। বঙ্গবন্ধু স্বপ্ন দেখতেন, এক সময়ে প্রমত্তা পদ্মায় সেতু হবে। পদ্মা সেতু নির্মাণ করে প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করেছেন। পদ্মা সেতু নির্মাণের ফলে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ সারা দেশের সাথে এক সুতোয় মিলিত হয়েছে। এখন এই অঞ্চলের মানুষকে আর পদ্মা পাড়ে দিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা সময় নষ্ট ও বিড়ম্বনায় পড়তে হবে না। সেতু উদ্বোধনে পদ্মা পাড়ের আনন্দ আমেজ সারা দেশে ছড়িয়ে দিতে তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের নিদের্শনা দেন।
বাগেরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা ভুইয়া হেমায়েত উদ্দীনের সভাপতিত্বে এই মত বিনিময় সভায় আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। এস এম কামাল হোসেন তার বক্তব্যে বলেন, পদ্মা সেতু নির্মাণের মধ্য দিয়ে স্ব^াধীনতাবিরোধী ষড়যন্ত্রকারীদের মুখোশ উন্মোচিত হয়েছে। পদ্মা সেতু চালুর মধ্য দিয়ে পিছিয়ে পড়া দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষ অর্থনৈতিক ভাবে সব থেকে বেশী সুবিধা লাভ করবে। পদ্মা সেতু উদ্ধোধনের পাশাপাশি মোংলা বন্দরের উন্নয়ণ, খুলনা-মোংলা রেলপথ, রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মানের পাশাপাশি এই অঞ্চলের সড়ক ও রেলপথ যোগাযোগ অবকাঠামো উন্নয়নে মহাপরিকল্পনা হাতে নিয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দেশ ব্যপি আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন পরিকল্পনা বাধাগ্রস্থ করতে দেশী-বিদেশী ষড়যন্ত্রকারীরা এখনো চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। জনগণকে সাথে নিয়ে আওয়ামী লীগ সরকার তাদের এই ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করছে। ইনশাআল্লাহ জাতির পিতার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রম কেউ ঠেকাতে পারবে না।
কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা বাগেরহাট-৪ আসনের সংসদ সদস্য এ্যড. আমিরুল আলম মিলনসহ বাগেরহাটের বিভিন্ন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, পৌর মেয়র ও জেলা-উপজেলা আওয়ামী লীগ ও তার অংঙ্গ সংগঠনের নেতারা এই মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন।

২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা

স্বপ্নের পদ্মাসেতু উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে খুলনা বিভাগের ১০ লাখ মানুষ অংশ নেবে- এমপি শেখ হেলাল ।

দেশী-বিদেশী সকল ষড়যন্ত্র রুখে স্বপ্নের পদ্মা সেতু নির্মাণ করেছে আওয়ামী লীগ সরকার। আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা।

এ জন্য এখন দেশের দক্ষিণÑপশ্চিম অঞ্চলের ২১ জেলায় উৎসব মূখর পরিবেশ বিরাজ করছে। এই উদ্বোধনের স্বাক্ষী হতে বাগেরহাটসহ খুলনা বিভাগ থেকে ১০ লাখ মানুষ পদ্মাপাড়ে কাঠালবাড়ির সমাবেশে যোগ দেবে। এজন্য খুলনা বিভাগের সকল জেলা উপজেলা ও মহানগরে প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার জনসভায় দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকরা অংশ নেবেন। বাগেরহাটের সকল উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে সুশৃংখল ও স্বতস্ফুর্তভাবে অংশগ্রহণ করবেন বলেছেন  শেখ হেলাল উদ্দীন এমপি।

rj

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ

সকল নিউজ সবার আগে পেতে লাইক দিন-

জনপ্রিয় পত্রিকাসমূহ