সোম. জুন ১৭, ২০২৪

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দুর্নীতিবাজদের গ্রেফতারে
দাবিতে সন্তান কমান্ডের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত।

ঢাকা অফিস।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দুর্নীতিবাজদের গ্রেফতারে
দাবিতে মুক্তিযোদ্ধা
সন্তান কমান্ড কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত। রবিবার ১২ জুলাই বেলা ১১ টায় জাতীয় প্রেসক্লাব সম্মুখে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক শাহেদ, জেকেজি গ্রুপের ডাঃ সাবরিনা, স্বাস্থ্যখাতের মাফিয়া ঠিকাদার মিঠু গং সহ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সকল দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা এবং কর্মচারীদের গ্রেফতার এর দাবিতে এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি জনাব মেহেদী হাসান এর নেতৃত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মোঃ সেলিম রেজার সঞ্চালনায় কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন
সন্তান কমান্ডের
মাধবী ইয়াসমিন রুমা, মাহাবুবুর রহমান, জাফর ইকবাল নানটু, গোলাম রহমান লিখন, ইকবাল, আলমগীরসহ সন্তান কমান্ড কেন্দ্রীয় কমিটির সহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। মানববন্ধনে বক্তারা অনতিবিলম্বে শাহেদ কে গ্রেফতার করে শাস্তি নিশ্চিত করার আহ্বান জানান। কর্মসূচির সমাপনী বক্তব্যে সংগঠনের সভাপতি মেহেদী হাসান তার বক্তব্যে আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান শাহেদ সহ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের গ্রেফতার করা না হলে আগামী ১৫ এপ্রিল বুধবার বেলা ১১ মহাখলিস্থ স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ঘেরাও কর্মসূচি ঘোষণা করে নিম্ন লিখিত দাবি পেশ করেন।
(১) মৌলিক চাহিদার অন্যতম স্বাস্থ্যখাতের দুর্বিত্তায়ন রোধে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কে ডাক্তার চক্রের সিন্ডিকেট মুক্ত করে স্বাস্থ্য সংশ্লিষ্ট সকল পেশার লোকদের প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করতে হবে।
(২) সরকারি আধাসরকারি, স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ব্যক্তি পর্যায়ে সকল দুর্নীতিবাজদের চিহ্নিত করে সারা দেশব্যাপী জেলা পর্যায়ে বিশেষ আদালত গঠনের দ্রুত বিচার এবং তাদের স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ ও সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে রাষ্ট্রের আয়াত্তে এনে দেশের কল্যাণে ব্যবহার করা হোক।
(৩) স্বাধীনতা ও দেশবিরোধী চক্রের করতে সামাজিক সেল করতসকল পর্যায়ের অপ তৎপরতা প্রতিহত করতে সামাজিক সেল করে কার্যক্রম নিশ্চিত করণ ও দুর্বিত্তায়নে মদদ দাতাদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা হোক।
(৪) চাকুরিতে যোগদানের সময় নিয়োগ কৃতদের স্থাবর-অস্থাবর সম্পদের হিসাব বাধ্যতামূলক করা হউক।
(৫) সর্বক্ষেত্রে শীর্ষ পর্যায়ের দুর্নীতিবাজদের তালিকা নাম, ঠিকানা, পদ পদবী ছবি সহ গণমাধ্যমে প্রকাশ করা হোক এবং রাজনৈতিক দল সমূহে দুর্নীতিবাজ সকল নেতাদের স্থায়ীভাবে বহিস্কার সহ অনৈতিক কর্মকান্ডের দৃষ্টান্তমূলক
শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক।
কর্মসূচিতে উপস্থিত সকলকে আগামী ১৫ জুলাই স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ঘেরাও কর্মসূচি সফল করার আহ্বান জানিয়ে কর্মসূচির সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *