সোম. মার্চ ৪, ২০২৪

 

প্রতিনিধি শরণখোলা বাগেরহাট ঃ

পূর্ব সুন্দরবনের কচিখালী অভয়ারন্য এলাকার পক্ষির চর থেকে সাতজন হরিণ শিকারিকে আটক করেছে বন রক্ষীরা। এসময় তাদের কাছ থেকে একটি ট্রলারসহ হরিণ শিকারের ফাঁদ ও জাল জব্দ করা হয়। শনিবার ভােরে জ্ঞানপাড়া টহল ফাড়ির বন রক্ষীরা গােপন সংবাদের ভিত্তিতে শিকারিদের আটক করে।
বন বিভাগের শরণখােলা রেঞ্জ কর্মকর্তা (এসিএফ) মােঃ জয়নাল আবেদীন বলেন. পাথরঘাটা উপজেলার জ্ঞানপাড়া এলাকার কুখ্যাত হরিণ শিকারী অর্ধশতাধিক মামলার আসামী মালেক গােমস্তার সহযােগী ইব্রাহীম বিশ্বাস তার লােকজন নিয়ে সুন্দরবনে যায়। এ খবর পেয়ে জ্ঞানপাড়া টহল ফাড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মােঃ সাদিক মাহমুদ বন রক্ষীদের নিয়ে বনে তল্লাশি অভিযান চালায়। একপর্যায় ভাের ৫টার দিকে কচিখালীর পক্ষির চর থেকে তাদের আটক করতে সক্ষম হয়। আটকরা হচ্ছে, পাথরঘাটা উপজেলার দক্ষিন চরদুয়ানী গ্রামের মুনসুর আলী বিশ্বাসের পুত্র দলনেতা ইব্রাহীম বিশ্বাস (৩৬), ইব্রাহিমের পুত্র মাঃ ইউনুচ (১৮), একই গ্রামের মােঃ ইসমাইলের পুত্র মােঃ মােস্তফা (৩০), পাথরঘাটা উপজেলার সায়রাবাদ গ্রামের আঃ হকের পুত্র শুকুর আলী (১৯), উত্তর কাঠালতলী গ্রামের আঃ হামিদের পুত্র ইলিয়াস (৩০), তালুকর চরদুয়ানী গ্রামের হাবিব মােল্লার পুত্র রাজু (২৫) ও মঠবাড়িয়া উপজেলার নলি গ্রামের আঃ ছালাম কাজির পুত্র জাকির কাজি (৩৫)।
এসময় তাদের কাছ থেকে একটি ইঞ্জিন চালিত ট্রলার, দুইশত হাত ইলিশের জাল ও দুইশত হাত নাইলনের তৈরী হরিণ শিকারের ফাদসহ কয়কটি দা ও ছুরি জব্দ করা হয়।আটককৃতদের বন আইনে মামলা দিয়ে জেল হাজত প্রেরন করা হবে। আটক হরিণ শিকারি ইব্রাহিম বিশ্বাস প্রায় দুই মাস আগে কটকা অভয়ারণ্য এলাকার ছাপড়াখালি এলাকা থেকে হরিণসহ বন বিভাগর হাতে আটক হয়েছিল বলে এসিএফ জানান।

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *