সোম. মার্চ ৪, ২০২৪

বাগেরহাট প্রতিনিধিঃ
দ্বিতীয় চালানে দেশে প্রথমবারের মত নির্মিতব্য মেট্রোরেলের আরও ৬ বগী এসে পৌছেছে মোংলা বন্দরে। রবিবার (৯ মে) দুপুরে জাপানের কোবে বন্দর থেকে ছেড়ে আসা বেলিজ পতাকাবাহী জাহাজ “এমভি ওশান গ্রেস” মোংলা বন্দরের জেটিতে ভিড়ছে। বিকেল নাগাদ এসব কোচ বন্দর জেটি থেকে খালাস শুরু হবে বলে জানিয়েছে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ। এর আগে ২১ এপ্রিল সকালে জাহাজীকরণ শেষে কোবে সমুদ্রবন্দর থেকে দ্বিতীয় চালানের ছয় সেট ট্রেন নিয়ে বাংলাদেশে রওনা দিয়েছিল “এমভি ওশান গ্রেস”। এই নিয়ে মোংলা বন্দরে মেট্রোরেলের দুটি চালান পৌছালো। এর আগে ৩১ মার্চ ৬টি বগী নিয়ে মেট্রোরেলের প্রথম চালান পৌছেছিল মোংলা বন্দরে। পরবর্তীতে নদী পথে ঢাকায় নেওয়া হয় কোচ গুলোকে।
বিদেশী জাহাজটির স্থানীয় শিপিং এজেন্ট এনসিয়েন্ট ষ্টিমশীপ কোম্পানী লিমিটেডের মহাব্যবস্থাপক মো. ওহিদুজ্জামান বলেন, ৬টি বগী নিয়ে “এমভি ওশান গ্রেস” নামের বেলিজ পতাকাবাহী জাহাজটি মোংলা বন্দরে এসে পৌছেছে। আমরা যত দ্রত সম্ভব খালাস শুরু করব।
ঢাকা ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট কোম্পানী লিমিটেডের কন্ট্রাক্ট প্যাকেজ-০৮ এর প্রকল্প ব্যবস্থাপক এবিএম আরিফুর রহমান বলেন, মেট্রোরেলের লাইন-৬ কন্ট্রাক্ট প্যাকেজ-০৮ আওতায় এর জন্য ২৪টি যাত্রীবাহী রেল কোচ আমদানি করা হবে। প্রতিটি কোচে ৬টি বগী থাকবে। ৬টি বগীর একটি প্যাকেজে ভ্যাট-ট্যাক্সসহ প্রায় একশ কোটি টাকা ব্যয় হচ্ছে আমাদের। রবিবার দুপুরে দ্বিতীয় বারের মত মেট্রোরেলে ৬টি বগী মোংলায় এসেছে। এর আগে ৩১ মার্চ সর্বপ্রথম ৬টি বগী এসছিল মোংলা বন্দরে। পরবর্তীতে আমরা ঢাকাস্থ মেট্রোরেলের নিজস্ব স্থানে নিয়েছি। তিনি আরও বলেন, মেট্রোরেল প্রকল্পের জন্য ২৪ সেট ট্রেন তৈরি করছে জাপানের কাওয়াসাকি-মিতসুবিশি। প্রতি সেট ট্রেনের দুপাশে দুটি ইঞ্জিন থাকবে। এর মধ্যে থাকবে চারটি করে কোচ। ট্রেনগুলোয় ডিসি ১৫০০ ভোল্ট বিদ্যুৎ সরবরাহের ব্যবস্থা থাকবে। স্টেইনলেস স্টিল বডির ট্রেনগুলোতে থাকবে লম্বালম্বি আসন। প্রতিটি ট্রেনে থাকবে দুটি হুইল চেয়ারের ব্যবস্থা। শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত প্রতিটি বগির দুপাশে থাকবে চারটি করে দরজা। জাপানি স্ট্যান্ডার্ডের নিরাপত্তাব্যবস্থা সংবলিত প্রতিটি ট্রেনের যাত্রী ধারণক্ষমতা হবে এক হাজার ৭৩৮ জন। মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এ্যাডমিরাল মোহাম্মাদ মূসা বলেন, দ্বিতীয় বারের মত মোংলা বন্দরে মেট্রোরেলের ৬ বগী এসে পৌছেছে। আসা করি খুব দ্রুত খালাস শুরু হবে। ২০২২ সালের মধ্যে ২৪টি জাহাজে আরও ১৪৪টি বগী মোংলা বন্দর থেকে খালাস হবে বলে জানান তিনি।

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *