বৃহঃ. ফেব্রু ২২, ২০২৪

 

 

বাগেরহাট প্রতিনিধিঃ

বাগেরহাটের মোল্লাহাটে বাবার হাতে আড়াই বছর বয়সী এক শিশু কন্যার মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সোমবার রাতে মোল্লাহাট উপজেলার উদয়পুর ইউনিয়নের দৈবকান্দী গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর পালিয়ে গেছে শিশুটির পিতা।শিশুটির নাম রাইসা আক্তার। তাঁর পিতা হুমায়ুন সরদার ওরফে মহিউদ্দিন উদয়পুর দৈবকান্দী গ্রামের প্রয়াত আব্দুর রহমানের ছেলে।স্থানীয়রা জানান, হুমায়ুন সরদার সেনা সদস্য। তাদের দুটি কন্য সন্তান। রাইসা ছাড়াও স্নিগ্ধা আক্তার নামে তাদের পাঁচ বছর বয়সী একটি মেয়ে আছে।মোল্লাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী গোলাম কবির বলেন, পারিবারিক বিরোধের জেরে রাত সাড়ে ৬ টার দিকে হুমায়ুন সরদার তার আড়াই বছর বয়সী মেয়ে রাইসাকে আছাড় দেন। এতে ঘটনাস্থলেই শিশুটি মারা গেছে। শিশুটির পিতা হুমায়ুন সরদারকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তে জন্য পাঠানো হয়েছে।

মোল্লাহাট উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ বিল্পব কান্তি বিশ্বাস বা জানান, সন্ধ্যা ৬.৫০ মিনিটের সময় রাইসা নাম করে ১টি বাচ্চাকে ইর্মাজেন্সি বিভাগে নিয়ে আসে শুনেছি তার পিতা বাচ্চাটি আছাড় দিয়ে এবং আছাড়ের ফলে মাথার হাড় ভেঙ্গে গেছে তার বাম কান দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল এবং বাম চোখ দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল। বাচ্চাটিকে আনার পরে আমরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখলাম বাচ্চাটি এখানে আসার আগে মৃত্যুবরন করেছে। ময়না তদন্ত হওয়ার পর রিপোর্ট পেলে আমরা আরও নিশ্চিত হতে পারবো যে সে আঘাত জনিত কারণে মারা গেছে কি না।

 

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *