শিরোনামঃ
বাগেরহাটে ২৪ ঘন্টায় আরও ৮৯ আক্রান্ত, সংক্রমণেরহার ৫০ শতাংশ মুজিববর্ষ উপলক্ষে বাগেরহাটে পাকাঘর পাচ্ছেন আরও ৪৩৪ ভূমিহীন পরিবার বাগেরহাট প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এ্যাড. মোজাফফর হোসেন আর নেই শেখ তন্ময় এমপি উদ্যোগে বাগেরহাটে ভ্রাম্যমান নমুনা সংগ্রহ ও করোনা পরীক্ষা শুরু বাগেরহাট প্রসেক্লাবের আয়োজনে এ্যাডঃ মোজাফ্ফর হোসেনের  রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া বাঘের আক্রমণ থেকে বেঁচে গিয়ে সুন্দরবনের হরিণের লোকালয়ে আশ্রয় আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ও ইউনিটসমূহের কার্যক্রম স্থগিত মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আইন মন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী,র দৃষ্টি আকর্ষণ করছি. দুর্জয়  বাগেরহাটে চিংড়ি গবেষনা কেন্দ্রে  আঞ্চলিক কর্মশালা অনুষ্ঠিত বাগেরহাটে ইউপি নির্বাচনে করোনা সংক্রমন বৃদ্ধির শঙ্কা, উদ্বীগ্ন সচেতন মহল

বাগেরহাটে টিকটক ও লাইকি এ্যাপসে আপত্তিকর ছবি পোস্টের অপরাধে স্ত্রীকে হত্যা

উত্তাল সংবাদ ডেস্কঃ
  • প্রকাশিত রবিবার, ৯ মে, ২০২১
  • ২৫

 

বাগেরহাট প্রতিনিধিঃ

বাগেরহাটে টিকটক ও লাইকি এ্যাপসে আপত্তিকর ছবি পোস্ট করায় সোমা আক্তার (১৯) নামের এক শিক্ষার্থীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে তার স্বামী। শনিবার  সন্ধ্যায় বাগেরহাট শহরে দশানী উত্তরপাড়া এলাকায় এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। রাত সাড়ে আটটার দিকে ঘাতক স্বামী আব্দুল্লাহ আল নাইম ওরফে শান্ত (২৩) বাগেরহাট মডেল থানায় আত্মসমর্পন করেছে। পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। হত্যার শিকার সোমা আক্তার বাগেরহাট সদর উপজেলার সিংড়াই গ্রামের আব্দুল করিম বকসের মেয়ে। সে বাগেরহাট সরকারি পিসি কলেজে ইংরেজী বিভাগে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে পড়াশুনা করতেন। আত্মসমর্পণকারী আব্দুল্লাহ আল নাইম ওরফে শান্ত দশানী উত্তরপাড়া এলাকার গোলাম মোহাম্মাদের ছেলে। সে ঢাকায় একটি বাইয়িং হাউসে কাজ করত। প্রেমের সম্পর্কের মাধ্যমে ২০১৯ সালে নাইম ও সোমার বিয়ে হয়েছিল। আত্মসমর্পণকারী আব্দুল্লাহ আল নাইম ওরফে শান্তোর বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, লাইকি এ্যাপস ও বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সোমার এ্যাকাউন্ট ছিল। সোমা সেসব এ্যাকউন্টে আপত্তিকর ছবি পোস্ট করত। এসব নিয়ে স্বামী নাইমের সাথে তার ঝামেলা ছিল। শনিবার ঢাকা থেকে ফিরে সোমাকে ফোন করে। বিকেল তিনটার দিকে দশানীস্থ নাইমের বাড়িতে আসে সোমা। সেখানে সন্ধ্যার দিকে ওরনা দিয়ে গলায় ফাস দিয়ে সোমাকে হত্যা করে নাইম। নাইমের বাবা-মা ঢাকায় থাকায় বাড়িতে শুধু তারা দুজন ছিল। সোমা পরকিয়া পুলিশের কাছে এমন অভিযোগও করেছে তার স্বামী। সোমার ভাই রাসেল জানান, ছেলে বেকার কিছু করত না। আমার বোনকে খেতে পড়তে দিত না। এসব নিয়ে সংসারে ঝামেলা হত। এই কারণেও হত্যা হতে পারে। বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম আজিজুল ইসলাম বলেন, আমরা মরদেহ উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছি। হত্যাকারী আব্দুল্লাহ আল নাইম ওরফে শান্ত আমাদের হেফাজতে রয়েছে। সে হত্যার দায় ও কারণ পুলিশকে জানিয়েছে। এসপরেও হত্যার সাথে অন্য কোন বিষয় জড়িত আছে কিনা তা আমরা খতিয়ে দেখছি।#

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ

সকল নিউজ সবার আগে পেতে লাইক দিন-

জনপ্রিয় পত্রিকাসমূহ