মঙ্গল. ফেব্রু ২০, ২০২৪

বাগেরহাট প্রতিনিধিঃ
বাগেরহাটে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহভাজন রোগীদের জন্য করোনা পরীক্ষার জিন এক্সপার্ট ল্যাব চালু করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ। মঙ্গলবার সকালে বাগেরহাট শহরের মুণিগঞ্জ এলাকার সরকারি বক্ষব্যাধি ক্লিনিকে ল্যাবটির উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্য বিভাগের খুলনা বিভাগীয় পরিচালক ডা. রাশেদা সুলতানা। বক্ষব্যাধির আধুনিক জিন এক্সপার্ট মেশিনে করোনা ভাইরাস পরীক্ষা করা হবে। তবে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে আসা মুমুর্য্য রোগী ছাড়া এই ল্যাবে অন্যদের পরীক্ষা করা যাবে না।
এরআগে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার পর বাগেরহাট জেলার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে নমুন পরীক্ষা হয়ে আসছিল।
স্বাস্থ্য বিভাগের খুলনা বিভাগীয় পরিচালক ডা. রাশেদা সুলতানা সাংবাদিকদের বলেন, যেসব জেলাতে করোনা ভাইরাস পরীক্ষার পিসিআর ল্যাব নেই সেসব জেলার বক্ষব্যাধি ক্লিনিকের আধুনিক জিন এক্সপার্ট মেশিন ব্যবহার করা হচ্ছে। এই আধুনিক মেশিনে করোনা ভাইরাসের পরীক্ষা অধিকাংশই নির্ভূল ও মাত্র ৪৫ মিনিটে পরীক্ষার ফলাফল পাওয়া যায়। প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত টেকনিশিয়ান এই পরীক্ষা করবে। বিভিন্ন ল্যাবের পরীক্ষায় দেখা গেছে শতকরা ৯৭ শতাংশই সঠিক হচ্ছে। ইতিমধ্যে খুলনা বিভাগের ছয় জেলার বক্ষব্যাধি ক্লিনিকের আধুনিক জিন এক্সপার্ট মেশিনে করোনা পরীক্ষা চালু হয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় বাগেরহাট জেলাতেও এটি চালু করা হল। তবে এই মেশিনে দিনে চারটি করে মোট ২০টির বেশি পরীক্ষা করা যাবেনা। আমরা এই মেশিনে জেলার মুমুর্য্য রোগীদেরই নমুনা সংগ্রহ করে করোনা ভাইরাসের পরীক্ষা করব।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাগেরহাটের সিভিল সার্জন ডা. কে এম হুমায়ুন কবির, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সরদার নাসির উদ্দিন, বাগেরহাট সদর হাসপাতালের অর্থোপেডিক বিভাগের কনস্যালটেন্ট ডা. এস এম শাহনেওয়াজ, মেডিসিন বিভাগের কনস্যালটেন্ট সাঈদ আহমেদ, বক্ষব্যাধির ক্লিনিকের প্রধান ডা. মুশফিখার শামস মেনন, বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্যের ব্যক্তিগত একান্ত সহকারি এইচ এম শাহীনসহ স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা।

 

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *