মঙ্গল. ফেব্রু ২০, ২০২৪

প্রতিনিধি কয়রা খুলনা:

লাগাও গাছ বাঁচাও দেশ শেখ হাসিনার নির্দেশ। প্রধানমন্ত্রীর এই নির্দেশনায় বাংলাদেশ কৃষি ইনস্টিটিউটের সরেজমিন গবেষণা বিভাগ এমএলটি সাইট কয়রার উদ্যোগে মিশ্র ফলের বাগান, ও রাস্তার ধারে তাল খেজুর এবং বিভন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নারিকেলের চারা লাগিয়ে বৃক্ষরোপন কর্মসুচির শুভ উদ্বোধন করেছেন খুলনা- কয়রা-পাইকগাছার মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ আকতারুজ্জামান বাবু। গোপালগঞ্জ জেলায় বিএআরআই এর কৃষি গবেষণা কেন্দ্র স্থাপন প্রকল্পের আওতায়, দেশের দক্ষিণাঞ্চলে ৫ টি জেলায় ৩৮ টি উপজেলায় ফলের চারা রোপন ও ফল বাগান স্থাপন করা হবে। শুক্রবার সুন্দরবন বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে নারিকেল, খেজুর ও তালের চারা রোপনের শুভ উদ্বোধন করা হয়।রোপনপরবর্তী বিদ্যালয়ের হলরুমে উপ প্রকল্প পরিচালক ও খুলনার প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মোঃ হারুনর রশিদের সভাপতিত্বেএক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এমএলটি সাইট কয়রায় বৈজ্ঞানিক সহকারি মোঃ জাহিদ হাসানের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ আকতারুজ্জামান বাবু। বক্তব্য এমপি বাবু বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এক ইঞ্চি জমিও যেন খালি না থাকে। প্রধানমন্ত্রীর এ নির্দেশনায় বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট এবং কৃষি মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে এবং আমি নিজে বিভিন্ন ব্যক্তিদেরকে তাদের পরিবারের পুষ্টি চাহিদা মিটানোর জন্য আমরা পুষ্টি বাগান ও সবজি বাগানের জন্য উৎসাহিত করছি এবং সহযোগিতা করছি। শুধু ফলের বাগান নয় কয়রা পাইকগাছা সবুজ করতে রাস্তার দু’পাশে ও গাছ লাগানো হবে। তালগাছ সাধারণত বজ্রপাত থেকে মানুষকে রক্ষাসহ পরিবেশ বিপর্যয়ের হাত থেকে রক্ষা করে। অথচ কালের বিবর্তনে বাংলাদেশে তালগাছগুলো হারিয়ে যাচ্ছে। ফলে বিপর্যয় ঘটছে,পভাব পড়ছে জলবায়ুতে এবং দেশে প্রতিনিয়ত বজ্রপাতের আঘাতে অকালে প্রাণ হারাচ্ছে অসংখ্য মানুষ। এবং নদী ভাঙ্গনরোধ করতে নদীর ধারেও গাছ লাগানো হবে। উপ প্রকল্প পরিচালক ও খুলনার প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মোঃ হারুনর রশিদের সাথে কথা বলেলে তিনি বলেন, বর্তমানে বিদ্যুৎ চমকিয়ে অনেক মানুষ মারা যাচ্ছে, তাছাড়া পশুপাখির আশ্রয়স্থল হিসেবে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় গাছের বিকল্প নেই। মানুষের খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তার চাহিদা মেটাতে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের সরেজমিন গবেষণা বিভাগ এর এমএলটি সাইট কয়রার মিশ্র ফলের বাগান বাগান ও রাস্তারধারে তাল, খেজুর, এবং কয়রায় প্রত্যেক মাদ্রসা, স্কুল, কলেজ সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নারিকেলের চারা লাগানো হবে। এবং চারা সংরক্ষেনের জন্য আমরা বাশের খাচি দিয়ে দিব। এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি জিএম মোহসিন রেজা, সহ সভাপতি বাবু খগেন্দ্রনাথ মন্ডল, সাংগঠনিক সম্পাদ এসএম বাহারুল ইসলাম, সংস্কৃতি সম্পাদক প্রভাষক শাহাবাজ আলী, বালিকা বিদ্যালয়ের প্রদান শিক্ষক মোঃ খায়রুল আলম, উপজেলা ছাত্রলীগ ভাপতি শরিফুল ইসলাম টিংকু বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ খায়রুল আলম সহ গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *